,
শিরোনাম:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৪ টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবনসহ দুটি উচ্চ বিদ্যালয়ে একাডেমীক ভবনের উদ্বোধন ফ্রান্সে মহানবীর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ এক মাসে গ্রেফতার হয় নি জোড়া খুন মামলার আসামীরা খুনীরা প্রকাশ্যে ঘুরছে, পরিবারের সদস্যদের ভয়-ভীতি প্রদর্শন সরাইলের এসি ল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৫০ লাখ টাকার ক্ষতিপূরন মামলা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সোহরাব হোসেনের ইন্তেকাল ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের শেরপুর কবরস্থানে লাশ দাফন বন্ধ সম্প্রসারন ও উন্নয়নে দরকার কয়েক কোটি টাকা নবীনগরে যুবদলের সভায় পুলিশের বাঁধা, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, আহত-২৫ মিজানুর রহমান মিজ্জুর ইন্তেকাল, বিভিন্ন মহলে শোকের ছায়া। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাস চাপায় রিকশা চালক নিহত ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে পৃথক ঘটনায় ২ জন নিহত 

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ডাকাতিসহ হত্যা মামলায় চারজনের যাবজ্জীবন করাদন্ড

খবর সারাদিন রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ডাকাতিসহ হত্যা মামলায় চারজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছেন জেলা ও দায়রা জজ আদালত। বুধবার বিকেলে জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ শফিউল আজম এ রায় দেন।
সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, জেলার কসবা উপজেলার জগন্নাথপুর পূর্বপাড়া গ্রামের আব্দুল আলিমের ছেলে আল আমিন, নুনু মিয়ার ছেলে জান্নাত হোসেন পাঠানের ছেলে সোহেল পাঠান ও কসবার ব্রাহ্মণমোড়া গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে মো. ইব্রাহীম। তাদের মধ্যে জান্নাত ও সোহেল পলাতক রয়েছে।
আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর দিনগত রাত তিনটার দিকে কসবা উপজেলার জগন্নাথপুর গ্রামের শাহ আলমের বসতঘরের পূর্বদিকের সিদ কেটে আল আমিন, জান্নাত, সোহেল ও ইব্রাহীমসহ অজ্ঞাতনামা তিন থেকে চারজন ভেতরে প্রবেশ করে। সেসময় তারা হাত-পা বেধে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে রেজিয়াকে হত্যা করে। ঘটনা দেখে চিৎকার শুরু করলে তারা রেজিয়ার ছেলে মাসুক মিয়াকে মারধর করে। এক পর্যায়ে মাসুক সেখান থেকে ছুটে বাইরে গিয়ে চিৎকার শুরু করে। পরে আশপাশের লোকজন ঘটনাস্থলে পৌঁছে অভিযুক্তদের শনাক্ত করে। ২০১৫ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর নিহতের ভাই আবুল খায়ের বাদী হয়ে কসবা থানায় মামলা দায়ের করনে। মামলার পরপরই পুলিশ আল আমিনকে গ্রেপ্তার করে। ২০১৫ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর আল আমিন দোষ স্বীকার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। জবানবন্দিতে তিনি বাকী তিনজন আসামীর নাম জানান। দীর্ঘ তদন্ত শেষে পুলিশ চারজনকে আসামী করে অভিযোগপত্র দায়ের করেন। বুধবার বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ শফিউল আজম এ রায় প্রদান করেন।

 

ওয়েব ডিজাইন ঘর

Sorry, no post hare.