,
শিরোনাম:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কোটা আন্দোলনকারীদের সাথে ছাত্রলীগের ধাওয়া পালটা ধাওয়া \ বেশ কয়েকজন আহত, ককটেল বিস্ফোরণ নবীনগরে তিন শতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ নান্দনিক আবৃত্তির মধ্য দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া মাতিয়ে গেলেন ভারতের আবৃত্তি সংস্থা শ্রুতি সালিশ সভায় চেয়ারম্যানের নির্দেশে নারীকে নির্যাতন বিজয়নগরে বর্তমান ও সাবেক ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচার বিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস পালিত জনপ্রতিনিধিদের ক্ষমতার পরিধির মধ্যে থেকে এলাকার উন্নয়নে কাজ করতে হবে- গণপূর্ত মন্ত্রী বৃক্ষায়নের জায়গা না রেখে নতুন বাড়ি বা ভবন নির্মাণের অনুমতি দেয়া হবে না- গণপূর্ত মন্ত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাদক কারবারের বিরোধে নারীকে হত্যা, গ্রেফতার ৩ আখাউড়া থানার হাজত কক্ষের গ্রিল ভেঙে পালিয়ে যাওয়া আসামি ফের গ্রেপ্তার৷ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শ্বাসরোধ করে কন্যাশিশুকে হত্যা করলো মা

নিউজিল্যান্ডের নারীরা মুসলিমদের প্রতি সংহতি প্রকাশে স্কার্ফ পরলেন

1 256

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : – শুধু নিউজিল্যান্ডের সাধারণ নারী নয় এমনকি টেলিভিশনের তারকা উপস্থাপিকারাও ক্রাইস্টচার্চ হত্যাকাণ্ডের মুসলিমদের প্রতি সংহতি জানিয়ে স্কার্ফ পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি পোস্ট করেন। এসব ছবি ভাইরাল হয়। নিউজিল্যান্ডে শুক্রবার জাতীয়ভাবে শোক দিবস পালনের পাশাপাশি আগেই নারীদের পক্ষ থেকে ঘোষণা দেয়া হয়েছিল তারা এদিন স্কার্ফ পরবেন। ক্রাইস্টচার্চ হত্যাযজ্ঞে নিহতদের সন্মান ও তাদের স্বজনদের প্রতি সমবেদনা জানাতে তারা এধরনের কর্মসূচি পালন করেন। দেশটির তারকা উপস্থাপিকা টনি স্ট্রিট, লরা ম্যাকগোল্ডরিক, ব্রডি কেনসহ অন্যান্যরা মাথায় স্কার্ফ পরে মুসলিমদের প্রতি তাদের সমর্থন জানান। -নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড
এধরনের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করে টনি ও লরা মন্তব্য করেন , ‘আমরা মুসলিমদের পাশে দাঁড়িয়েছি। তাদের পাশে আমাদের অবস্থান শক্ত ও অটুট থাকবে।’ স্কার্ফ পরেন বিশিষ্ট সংবাদ উপস্থাপিকা এ্যাশ, প্রোডিউসার হেইদি ও জুলিয়েট। তারা একসঙ্গে ছবিও তোলেন। ইনস্টাগ্রাম এ্যাকাউন্টে টনি লেখেন, ‘আমাদের মুসলিম বন্ধুরা মাথায় স্কার্ফ পরে যেন নিরাপত্তার অভাব বোধ না করে।’
ক্রাইস্টচার্চ হত্যাযজ্ঞের পর নিউজিল্যান্ডের অনেক মুসলিম নারী স্কার্ফ পরে বাইরে যেতে ভয় পাচ্ছেন এমন অভিব্যক্তি জানানোর পর অকল্যান্ড থেকে ড. থায়া এ্যাশম্যান ‘হেডস্কার্ফ ফর হারমনি’ নামে এ কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেন। এ্যাশম্যান বলেন, এধরনের কর্মসূচি নারীকে স্কার্ফ পরে বাইরে যেতে তার ভয়কে দূর করতে এবং স্কার্ফ পরার ব্যাপারে যে কোনো নির্দিষ্ট রং বা ধরাবাঁধা নিয়ম নেই তাও বুঝতে সাহায্য করবে। যেসব পুরুষ এধরনের কর্মসূচির সাথে একাত্ম হতে চান তাদের গলায় বা হাতের কব্জিতে স্কার্ফ বাঁধার আহবান জানানো হয়।

শেয়ার করুন

Sorry, no post hare.