,
শিরোনাম:
আপেক্ষিক অর্থে বলা হয়েছে ৫০ বছর সময় লাগলেও সুষ্ঠ তদন্ত ও প্রকৃত অপরাধীদের ধরা হবে..ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আইনমন্ত্রী৷ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গণসংবর্ধণার জবাবে গণপূর্ত মন্ত্রী মোকতাদির চৌধুরী এমপি মজুদদারদের জরিমানা নয়, কারাগারে পাঠানোর অনুরোধ জানাই ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাদক সেবন করে অশ্লীল আচরন করায় সাতজনকে কারাদন্ড অবৈধভাবে খাল কাটা ও ব্যক্তিগত রাস্তা নির্মানের প্রতিবাদে বিজয়নগরে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল বাঞ্ছারামপুরে পুকুরে মিললো কিশোরের হাত-পা বাধাঁ লাশ৷ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির উদ্যোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শীতার্ত মানুষের মধ্যে ৮০০ কম্বল বিতরণ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে চুরি করার অপবাদে যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিলের জমি থেকে অটো চালকের মরদেহ উদ্ধার ৯৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ সরাইলে যুবক গ্রেপ্তার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে সাবেক এমপির গাড়িবহরে হামলা

মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে সন্তানরা, সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধা শৌচালয়ে আশ্রিত

পরিবারের বয়স্কদের সঙ্গে এমন অনেক ঘটনা প্রকাশ্যে আসে যা অনেক সময় প্রত্যেকের অন্তরে ব্যথা দেয়। কিন্তু এবার এমন একটি ঘটনা প্রকাশ্যে এলো যা শুনলে শিউরে উঠতে হয়। সত্তরোর্ধ্ব এক বৃদ্ধা মাকে শৌচালয়ে থাকতে বাধ্য করেছে তার সন্তানরা। ঘটনাটি সম্প্রতি প্রকাশ্যে এলে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।

ভারতের মধ্যপ্রদেশে বাসিন্দা ওই বৃদ্ধা তিন ছেলের জননী। পরিবারের সঙ্গে তার ঝামেলা লেগেই থাকতো। ব্যক্তিগত কারণে এই বৃদ্ধার সঙ্গে মনমালিন্য তার ছেলে-বউমার। অথচ একজনেরও মায়ের দিকে খেয়াল নেই। যে যার নিজের জীবন নিয়ে ব্যস্ত। বরং মায়ের যাতে অসুবিধা হয়, সে চেষ্টাই নাকি করে যাচ্ছেন তারা।

দেশটির গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, প্রতিদিন ওই বৃদ্ধার সঙ্গে ছেলেদের ও বউমার অশান্তি লেগে থাকতো। সে কারণেই একবছর আগে মাকে বাড়ির বাইরে বের করে দিয়েছিলো তারা। সেই থেকে বাড়ির বাইরেই রয়েছেন বৃদ্ধা। আশ্রয় বলতে শৌচালয়। ওখানেই সংসার পেতেছেন তিনি। ওখানেই থাকেন, খাওয়া-দাওয়া করেন, ঘুমান। একবছর ধরে এটাই তার আশ্রয়স্থল।

ওই বৃদ্ধা জানান, ‘আমি তিন ছেলের মা। আমার সঙ্গে আমার বউমার অশান্তি লেগেই থাকতো। অনেক বিষয় নিয়ে আমাদের মধ্যে ঝগড়া হত। সেই জন্যই আমাকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। একবছর হয়ে গেল আমাকে বাড়ির বাইরে শৌচালয়ে থাকতে হয়। নিজেই রান্না করি। এই শৌচালয়ের মধ্যেই ঘুমাই।’

ঘটনাটি মহকুমা শাসককে জানানো হয়েছে। শোনা যাচ্ছে, সরকারের তরফে ওই বৃদ্ধাকে একটি বাড়ি দেওয়ার পরিকল্পনা চলছে।

ওয়েব ডিজাইন ঘর

Sorry, no post hare.