,
শিরোনাম:
বিএনপি তাদের শাসনামলে যুদ্ধাপরাধী ও রাজাকার আলবদরদের সঙ্গে নিয়ে পাকিস্তানের দালাল হয়ে বাংলাদেশের জনগণকে শোষণ ও অত্যাচার করত : আইন মন্ত্রী আনিসুল হক ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ম্যারাথন প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় টিসিবির পণ্য বিক্রয় মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের গুরুত্ব ব্যাপক উপজেলা পরিষদের নির্বাচন আখাউড়ায় নির্বাচনী সভায় ভুড়িভোজের আয়োজন \ বিরিয়ানি মাদরাসায় দিলেন ম্যাজিস্ট্রেট ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মোটরসাইকেল ও সিএনজি অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-১/ আহত-৫ এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল-জিপিএ-৫-এ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় সেরা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আসামী ধরতে গিয়ে নারীর কপালে পিস্তল ঠেকিয়ে গুলি করল ডিবি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের কর্মী সমাবেশ চলাকালে সংঘর্ষে ৩ জন আহত স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনের লড়াইয়ে ছাত্রলীগকে সর্বতোভাবে পাশে থাকার আহ্বান-গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী

মরদেহ রাখা হচ্ছে ফ্রিজে।

images 11 1

খবর সারাদিন রিপোর্ট : মর্গে জায়গা না হওয়ায় বাধ্য হয়ে করোনায় আক্রান্তদের মরদেহ বিশাল আকারের ফ্রিজে সংরক্ষণ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে ইকুয়েডর সরকার। শনিবার ল্যাটিন আমেরিকার দেশটির পক্ষ থেকে এমনটি জানানো হয়।

এর আগে বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, ইকুয়েডরের সবচেয়ে জনবহুল শহর গুয়াইয়াকিল রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখা গেছে মরদেহ । আর এরপরই ইকুয়েডর সরকারের পক্ষ থেকে এমনটি জানানো হলো।

ইকুয়েডরে এ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে সরকারের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, মারা গেছেন ৩১৮ জন। যা দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি। কিন্তু দেশটির প্রেসিডেন্ট লেনিন মরেনো বলেছেন, প্রকৃতপক্ষে কর্তৃপক্ষ যা বলছে মৃতের সংখ্যা এর চেয়ে অনেক বেশি। তিনি জানান, প্রতিদিন ১০০টির বেশি মরদেহ সংগ্রহ করা হচ্ছে এবং সেগুলোকে সংরক্ষণ করে কবর দেয়ায় হচ্ছে। প্রেসিডেন্ট লেনিন মরেনোর ধারণা, ইকুয়েডরের জনবহুল গুয়াইয়াকিল শহরে প্রায় সাড়ে তিনহাজার মানুষ করোনায় মারা গেছেন।

গুয়াইয়াকিলের মেয়র সিনথিয়া ভিটেরি জানান, সরকার শহরটিতে ১২ মিটারের তিনটি কন্টেইনার স্থাপন করেছে। যেখানে তারা মরদেহ সংরক্ষণ করছে।

এদিকে মৃতের আত্মীয়রা যাতে সহজে জানতে পারে যে তাদের আত্মীয়দের কোথায় কবর দেয়া হয়েছে সেজন্য একটি ডিজিটাল ব্যবস্থা চালু করা হবে বলে জানিয়েছে ইকুয়েডর সরকার।

শেয়ার করুন

Sorry, no post hare.