,
শিরোনাম:
Police Clearence Certificate (PCC)- পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট আবেদনের সঠিক নিয়ম ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তিভিত্তিক দুদিনব্যাপী কৃষক প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধন ১০ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর সচল হল ব্রাহ্মণবাড়িয়ার গ্যাস সরবরাহ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় সরকারি কর্মকর্তা নিহত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রেনের ধাক্কায় বাবা নিহত মেয়ে আহত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুকুর থেকে পলিথিনে মোড়ানো নবজাতকের মরদেহ উদ্ধার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষ। অর্ধশতাধিক আহত, আটক ২০ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত আওয়মীলীগ ছাড়া ডান পন্ত্রী কোন রাজনৈতিক দল নারীর ক্ষমতায়নে বিশ্বাস করে না..গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী…. ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পূর্ব বিরোধের জেরে দুই গোষ্ঠির মধ্যে সংঘর্ষ, অগ্নিসংযোগ ও লুটপাট ,আটকঃ ৪

কসবায় মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা,ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ

খবর সারাদিন রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃহাসান(৭৫)এর বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা,ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার বিকাল চারটায় পৌরশহরের আড়াইবাড়ি গ্রামে তার নিজ বাড়িতে এ হামলা হয়েছে।এ ঘটনায় বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃহাসান(৭৫)বাদী হয়ে কসবা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।হামলাকারীরা হলেন কসবা পৌরসভার আড়াইবাড়ি গ্রামের মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে সুলতান মিয়া(৫০)ও লোকমান মিয়া(৩৫),সুলতান মিয়ার ছেলে আনাছ মিয়া(২১)ও ইফরান মিয়া(১৬),মৃত আবুল বাশারের ছেলে কাদের মিয়া(৩৭) এবং আবুল হাছানের ছেলে আব্দুল কারিম(২১)।
অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বায়েক গ্রামের মৃত ইছমাইল মিয়ার ছেলে নাজমুল হাসান(২৩)কে আড়াইবাড়ি গ্রামের সুলতান মিয়া(৫০)রাস্তায় মারপিট করতেছিল।নাজমুল হাসানের চিৎকার শুনে
মুক্তিযোদ্ধা মোঃহাসানের ছেলে মো:রকি মিয়া(২২)গিয়ে বাধা প্রদান করে।এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সুলতান মিয়া রকি মিয়াকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও মারধর করে।এরই জের ধরে সুলতান মিয়া দলবলসহ দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা মোঃ হাসানের বাড়িতে হামলা করে।ঘরের টিনের বেড়াসহ বাড়ির গেইট কুপাইয়া,বাইরাইয়া ভাংচুর করে ঘরের ভিতরে প্রবেশ করে স্বর্ণালংকারসহ মূল্যবান মালামাল লুটপাট করে।এতে মোট ৫ লক্ষ ৪৫ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃহাসান বলেন,আমার ছেলে রকি মিয়া বাজার থেকে বাড়িতে আসার পথে রাস্তায় লোকমানের সাথে তর্কতর্কি হয়।
হামলাকারীরা আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা বলে কিল ঘুষি মেরে পরনের কাপড় চোপর টানা হেচড়া করে ছিড়ে খুন খারাপীসহ হত্যার হুমকি দেয়।কসবার ১০ টি ইউনিয়নের মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডারসহ ১৫-২০ জন মুক্তিযোদ্ধা আমার বাড়ি পরিদর্শন করেন।স্থানীয় প্রশাসনকে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানান তারা।
আগামী ১৫ ডিসেম্বর কসবা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এড.রাশেদুল কাউছার ভূঁইয়া জীবন ঢাকা থেকে আসার পর তার সাথে আলোচনা করে পরবর্তীতে মানববন্ধন ও সাংবাদিক সম্মেলন সহ বিভিন্ন কর্মসূচির সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।
তিনি আরো বলেন,কসবা-আখাউড়ার সংসদ সদস্য ও মাননীয় আইনমন্ত্রী এড. আনিসুল হককে বিষয়টি জানানো হয়েছে।আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য তিনি আমাকে পরামর্শ দিয়েছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কসবা থানার অফিসার ইনচার্জ লোকমান হোসেন বলেন,মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে হামলা হয়েছে এমন একটি অভিযোগ পেয়েছি।ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে।তদন্ত শেষে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন

Sorry, no post hare.