,
শিরোনাম:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ছাত্রলীগ কর্মী হত্যার মুল হোতা ফারাবি অস্ত্রসহ গ্রেফতার…… ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ছাত্রলীগ কর্মীকে গুলি করে হত্যার জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবিতে মানববন্ধন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গুলি করে ছাত্রলীগ কর্মী হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের গুলিতে নিহত ছাত্রলীগ কর্মীর বাড়িতে জেলা আওয়ামীলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ছাত্রলীগ কর্মীকে গুলি করে হত্যার পর গা ঢাকা দিয়েছে ঘাতকরা, পরিবারে শোকের মাতম ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তিন উপজেলায় বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান হলেন যারা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিজয় মিছিলে প্রকাশ্যে গুলি, ছাত্রলীগ কর্মী নিহত ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তিন উপজেলায় চলছে নির্বাচনী সরঞ্জাম বিতরণ…… ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পিকআপ ভ্যান চাপায় অটোরিকশার দুই যাত্রী নিহত বাঞ্ছারামপুরে সিরাজুল ইসলাম তৃতীয়বারের মতো চেয়ারম্যান, আশুগঞ্জে জিতলেন জিয়াউল করিম সাজু

আখাউড়ায় সালিশ সভায় দুজনকে পিটিয়ে আহত

Akhaura pic 22 05
খবর সারাদিন রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় পূর্ব শত্রুতার জেরে সালিশ সভায় দুজনকে পিটিয়ে আহত করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন।  শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার দক্ষিণ ইউনিয়নের ছোট কুড়িপাইকা গ্রামের আমতলী বাজারে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন উপজেলার হীরাপুর গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধার ছেলে আবু রায়হান (৫৫) ও রিপন মিয়া (৫২)। গুরুতর আহত আবু রায়হানকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় আবু রায়হানের ছেলে মেহেদী হাসান আখাউড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, সামাজিক বিভিন্ন বিষয় নিয়া আবু রায়হানের সঙ্গে একই ইউনিয়নের ছোট কুড়িপাইকা গ্রামের ইলিয়াছ মিয়ার মধ্যে বিরোধ শত্রুতা চলছিল। এ ঘটনা মিমাংসার জন্য শুক্রবার সন্ধ্যায় আমতলী বাজারে একটি সালিস সভা বসে। সালিসসভা চলাকালে ইলিয়াছ মিয়া ও তার লোকজন অতর্কিতভাবে আবু রায়হান ও তার ভাই রিপন মিয়ার উপর হামলা করে বেদম মারধর করে। দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে আবু রায়হানের মাথায় গুরুতর জখম হয়। বড় ভাইকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে রিপন মিয়াকেও মারধর করে হামলাকারীরা। পরে স্থানীয় লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে আখাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করে। উন্নত চিকিৎসার জন্য আবু রায়হানকে কর্তব্যরত চিকিৎসক ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে। সালিশ সভায় উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য আব্দুর রহিম। তিনি বলেন, দ্ইু পক্ষের বিরোধ মিমাংসার জন্য সালিশ সভায় বসি। এসময় দুই পক্ষের বাকবিতন্ডার মধ্যে একপক্ষ আরেক পক্ষের উপর হামলা করে। আখাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
শেয়ার করুন

Sorry, no post hare.