,
শিরোনাম:
বিএনপি তাদের শাসনামলে যুদ্ধাপরাধী ও রাজাকার আলবদরদের সঙ্গে নিয়ে পাকিস্তানের দালাল হয়ে বাংলাদেশের জনগণকে শোষণ ও অত্যাচার করত : আইন মন্ত্রী আনিসুল হক ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ম্যারাথন প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় টিসিবির পণ্য বিক্রয় মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের গুরুত্ব ব্যাপক উপজেলা পরিষদের নির্বাচন আখাউড়ায় নির্বাচনী সভায় ভুড়িভোজের আয়োজন \ বিরিয়ানি মাদরাসায় দিলেন ম্যাজিস্ট্রেট ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মোটরসাইকেল ও সিএনজি অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-১/ আহত-৫ এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল-জিপিএ-৫-এ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় সেরা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আসামী ধরতে গিয়ে নারীর কপালে পিস্তল ঠেকিয়ে গুলি করল ডিবি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের কর্মী সমাবেশ চলাকালে সংঘর্ষে ৩ জন আহত স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনের লড়াইয়ে ছাত্রলীগকে সর্বতোভাবে পাশে থাকার আহ্বান-গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী

এসে গেল বিজয়ের মাস।বিজয়ের মাস এসো গেলো,,লেখকঃসাজ্জাদ হোসেন চিশতী,গণমাধ্যম শ্রমিক, বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও সদস্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় তথ্য ও গবেষণা উপ কমিটি

received 3203291439888749

আজ পহেলা ডিসেম্বর। পঞ্চাশ বছর আগে ১৬ ডিসেম্বর ন’মাসব্যাপী একটি রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে আমরা ছিনিয়ে এনেছিলাম স্বাধীনতার লাল সূর্য্যকে। ১৬ ডিসেম্বর আমাদের বিজয় দিবস। সে বিজয় শুধু একটি ভূখন্ডের নয়, নয় একটি মানবগোষ্ঠীর- সে বিজয় একটি চেতনার, একটি সংগ্রামের, একটি ইতিহাসের।একটি ভাষন,নয় মাস রক্তক্ষয় যুদ্ধ, ৩০ লাখ শহীদ,৩ লাখ মা বোনের ইজ্জত। সে বিজয় তো সীমাবদ্ধ নয় একটি দিবসে- তা অনুরণিত প্রতিদিন, প্রতি পলে, প্রতি প্রাণে,প্রতি মুহূর্তে।
স্বাধীনতার একটি অন্তর্নিহিত মাত্রিকতা আছে, তবে স্বাধীনতা কোনও বিমূর্ত ধারণা নয়। অন্যদিকে বিজয়েরও একটি বহি:মাত্রা আছে, কিন্তু বিজয় তো বোধের। সুতরাং বিজয় বা স্বাধীনতা শুধু উদযাপনের নয়, চেতনারও একে লালন ও ধারন করতে হবে এবং সেই চেতনা ধারণ করতে হবে বর্ষব্যাপী, প্রতিটি মানুষের হৃদয়ে- যারা ১৯৭১ দেখেছে তাদের এবং যারা দেখেনি, তাদেরও। যারা বিজয় দেখেছে তাদের একটি অংশ সেই চেতনাকে ধারন করে রাখতে পেরেছে কিন্ত সেই সঙ্গে এটাও তো সত্য যে অনেকেই সেই চেতনা বিস্মৃত হয়েছে এবং তাদের কেউ কেউ বেপথুও তো হয়েছে। স্বাধীনতা সংগ্রাম দেখেছে, কিন্তু স্বীকার করে না, তাদের সংখ্যাও কিন্তু কম নয়। সুতরাং মুক্তিযুদ্ধ ও বিজয়ের চেতনাকে যারা স্বাধীনতা সংগ্রামের সাক্ষী,আর যারা নতুন তাদের জন্য নতুন করে ফিরিয়ে আনতে হবে।জাতির পিতা,বাংলাদেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত নিয়ে কোন আপস নয়,জামাত,শিবির, স্বাধীনতা বিরোধীদের সাথে কোন আপস নয়,একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে হৃদয়ে জাতির পিতা ও বাংলাদেশ কে লালন ও ধারন করি,ভালবাসি বাংলাদেশ কে,শ্রদ্ধা করি এক ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কারিগর শেখ হাসিনাকে।

শেয়ার করুন

Sorry, no post hare.