,
শিরোনাম:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে প্রবাসীর স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সাড়ে ১০ ঘণ্টা পর গ্যাস সরবরাহ স্বাভাবিক সরাইলে ফসলি জমিতে মিললো অজ্ঞাতনামার লাশ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় ছায়েদুল হক স্বপন ও আখাউড়ায় মনির হোসেন জয়ী কসবা ও আখাউড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ব্যালট বাক্স ছিনতাই, প্রকাশ্যে সিলমারা, কেন্দ্র দখলের চেষ্টা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন কসবা-আখাউড়ায় বিভিন্ন অভিযোগে ২২ জনের কারাদন্ড কসবায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে আহত ব্রাহ্মণবাড়িয়ার দুই উপজেলায় পৌঁছে দেয়া হয়েছে নির্বাচনী সরঞ্জাম জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির উদ্যোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জেলা পর্যায়ে দুর্নীতি বিরোধী রচনা ও বিতর্ক প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত অদম্য ইচ্ছাশক্তিই ভালো ফলাফলের প্রধান হাতিয়ার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে ফোরলেন সড়ক পরিদর্শনশেষে ভারতীয় হাই কমিশনার দ্রুত অবকাঠামো দিতে পারলে ফোরলেন প্রকল্প থেকে জনগণ উপকৃত হবে

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৪ লেন সড়ক পরিদর্শন ২

খবর সারাদিন রির্পোট: ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার প্রণয় ভার্মা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ নদী বন্দর এবং আখাউড়া স্থল বন্দর পরিদর্শন করেছেন। সোমবার দুপুরে আশুগঞ্জ পৌছে আশুগঞ্জ নদীবন্দর থেকে আখাউড়া স্থলবন্দর পর্যন্ত নির্মাণাধীন চারলেন মহাসড়কের কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করেন। এসময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন- আমাদের প্রচেষ্টা মূলত এই উন্নত যোগাযোগ পরিকাঠামো ব্যবহার করে আমাদের দুই দেশের মধ্যে অর্থনৈতিক গতিশীলতা, জনগণের সুযোগ সুবিধা, সাংস্কৃতিক বিনিময় ইত্যাদিকে আরও সুবিধাজনক করা যা গত কয়েক বছর ধরে আমাদের প্রধানমন্ত্রীদের মধ্যে সংক্ষিপ্তভাবে আলোচনা করা হয়েছিল। আমি মনে করি এই প্রকল্পগুলি যোগাযোগ ব্যবস্থার রূপান্তরকে সহজতর করে অনেক দূর এগিয়ে যাবে। তাই আমরা আশাবাদী এবং আমরা কিছু সমস্যার সমাধান করতে এসেছি যা প্রকল্পের বাস্তবায়নে বিলম্ব করছে। আমরা আশা করি আমরা বাংলাদেশী স্থানীয় কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে সমর্থন পাব এবং তারা প্রক্রিয়াটি ত্বরান্বিত করতে সক্ষম হবে। যত তাড়াতাড়ি আমরা এই প্রকল্পগুলি তৈরি করব, তত দ্রুত সুফল আসবে। এটাই আমাদের এই সফরের উদ্দেশ্য। তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে এমন কিছু প্রকল্প রয়েছে যা ভারতের কাছ থেকে ক্রেডিট নিয়ে বাস্তবায়িত হচ্ছে। আমি আশুগঞ্জ বন্দর থেকে আখাউড়া-৪ লেন সড়কের নির্মাণকাজ পরিদর্শনে এসেছি যা ভারত থেকে ঋণের আওতায় নির্মিত হচ্ছে। আমরা সফল হয়েছি এবং দ্রুত অবকাঠামো দিতে পারলে এই প্রকল্প থেকে জনগণ উপকৃত হবে। তিনি আরো বলেন, আশুগঞ্জ বন্দরের জন্য কিছু ভবিষ্যত প্রকল্প রয়েছে যা ৪ লেন সড়কের মূল পয়েন্টে পরিণত হবে।  এর ফলে আমাদের ব্যবসা আরো সহজ হবে এবং আমাদের দুই দেশের মধ্যে পরিকাঠামো, যোগাযোগ ব্যবস্থাকে উন্নত করবে যা এই দুই দেশের জনগণের জন্য ভাল। দুই দেশের মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থার উপর আমাদের প্রকল্পগুলোতে দৃশ্যমান অগ্রগতি হয়েছে যেমন- রাস্তা, রেললাইন, নদীপথ আরো অন্যান্য যোগাযোগ ব্যবস্থা।

পরিদর্শনকালে ভারতীয় হাইকমিশনারের সাথে আশুগঞ্জ-আখাউড়া চারলেন মহাসড়ক প্রকল্পের পরিচালক শোয়েব আহমেদ, অতিরিক্ত প্রকল্প পরিচালক খালেদ সাহিদ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রুহুল আমিন উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন

Sorry, no post hare.