,
শিরোনাম:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে প্রবাসীর স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সাড়ে ১০ ঘণ্টা পর গ্যাস সরবরাহ স্বাভাবিক সরাইলে ফসলি জমিতে মিললো অজ্ঞাতনামার লাশ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় ছায়েদুল হক স্বপন ও আখাউড়ায় মনির হোসেন জয়ী কসবা ও আখাউড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ব্যালট বাক্স ছিনতাই, প্রকাশ্যে সিলমারা, কেন্দ্র দখলের চেষ্টা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন কসবা-আখাউড়ায় বিভিন্ন অভিযোগে ২২ জনের কারাদন্ড কসবায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে আহত ব্রাহ্মণবাড়িয়ার দুই উপজেলায় পৌঁছে দেয়া হয়েছে নির্বাচনী সরঞ্জাম জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির উদ্যোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জেলা পর্যায়ে দুর্নীতি বিরোধী রচনা ও বিতর্ক প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত অদম্য ইচ্ছাশক্তিই ভালো ফলাফলের প্রধান হাতিয়ার

বাবা মায়ের তিক্ত সম্পর্ক, অভিযোগ নিয়ে থানায় হাজির শিশু সন্তান…….

WhatsApp Image 2024 04 29 at 4.36.18 PM

খবর সারাদিন রিপোর্টঃ খুব সাধারন বিষয় নিয়ে বাবা-মায়ের মধ্যে ঝগড়া লেগেই থাকে এবং সেটা নিয়মিত। ছয় বছরের শিশু সিয়ামের কাকুতি মিনতিও বাবা-মায়ের ঝগড়া থামাতে পারে না। এমনকি তার চোখের সামনেই মাদকাসক্ত বাবা প্রায়ই মাকে মারধর করে।
এসব সহ্য হচ্ছিলো না সিয়ামের। অবশেষে থানায় হাজির হয় সিয়াম। খোঁজে বের করে থানা অফিসার ইনচার্জকে (ওসি)। পুলিশ তাকে চেয়ারে বসিয়ে অভিযোগ শুনেন। অতঃপর সিয়ামকে নিয়ে বাড়িতে যায়। ডেকে আনেন বাবাকে। তাৎক্ষণিকভাবেই বাবা-মাকে তারা আর কখনো ঝগড়া না করার অঙ্গীকার করান। এতে খুশি সিয়াম পুলিশকে বেশ হাসিমুখে বিদায় দেয়।
ঘটনাটি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার। প্রাতবাজার নামে এলাকার জাহাঙ্গীর মিয়ার ছেলে সিয়াম। রবিবার বেলা দুইটার দিকে সরাইল থানায় উপস্থিত হয়। থানায় বসেই তার কথা শুনেন ওসি মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম। শিশু সিয়াম তার বাবা-মায়ের প্রতি অভিযোগ আনার পাশাপাশি এ পরিস্থিতি থেকে পরিত্রান থেকে পুলিশের সহযোগিতা কামনা করেন। বিষয়টি সমাধানে এস.আই জয়নাল আবেদীন, এএসআই সাইফুল ইসলাম তাৎক্ষনিকভাবে শিশুটিকে নিয়ে তার বাড়িতে যান। ডেকে পাঠান তার বাবাকে। একই সঙ্গে বাড়িতে থাকা তার মাকেও থাকতে বলেন। পরে সিয়ামের উপস্থিতিতে বাবা-মাকে আর ঝগড়া না করার অঙ্গীকার করানো হয়। ওসি মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম জানান, দুপুরে হঠাৎ করেই শিশুটি এসে থানায় হাজির হয়। সে তার বাবা মায়ের প্রতি বিরক্ত প্রকাশ করে ও নানা অভিযোগ করে। তার কথা শুনে পুলিশ পাঠিয়ে বিষয়টি মীমাংসা করে দেওয়া হয়। সিয়ামের বাবা মা জানিয়েছে তারা আর কখনো ঝগড়া করবে না। এতে সিয়ামও বেশ খুশি হয়।

শেয়ার করুন

Sorry, no post hare.