,
শিরোনাম:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কোটা আন্দোলনকারীদের সাথে ছাত্রলীগের ধাওয়া পালটা ধাওয়া \ বেশ কয়েকজন আহত, ককটেল বিস্ফোরণ নবীনগরে তিন শতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ নান্দনিক আবৃত্তির মধ্য দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া মাতিয়ে গেলেন ভারতের আবৃত্তি সংস্থা শ্রুতি সালিশ সভায় চেয়ারম্যানের নির্দেশে নারীকে নির্যাতন বিজয়নগরে বর্তমান ও সাবেক ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচার বিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস পালিত জনপ্রতিনিধিদের ক্ষমতার পরিধির মধ্যে থেকে এলাকার উন্নয়নে কাজ করতে হবে- গণপূর্ত মন্ত্রী বৃক্ষায়নের জায়গা না রেখে নতুন বাড়ি বা ভবন নির্মাণের অনুমতি দেয়া হবে না- গণপূর্ত মন্ত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাদক কারবারের বিরোধে নারীকে হত্যা, গ্রেফতার ৩ আখাউড়া থানার হাজত কক্ষের গ্রিল ভেঙে পালিয়ে যাওয়া আসামি ফের গ্রেপ্তার৷ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শ্বাসরোধ করে কন্যাশিশুকে হত্যা করলো মা

আখাউড়া থানার হাজত কক্ষের গ্রিল ভেঙে পালিয়ে যাওয়া আসামি ফের গ্রেপ্তার৷

WhatsApp Image 2024 07 03 at 5.37.09 PM jpeg

খবর সারাদিন রিপোর্টঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়া আখাউড়া থানার হাজত কক্ষের গ্রিল ভেঙে পালিয়ে যাওয়া আসামি আরজু মিয়াকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার (৩ জুলাই) ভোরে জেলার কসবা উপজেলার বিনাউটি ইউনিয়নের বিনাউটি গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে আখাউড়া থানা পুলিশ। গ্রেপ্তার আরজু মিয়া ওই এলাকার মো. নূরুল হকের ছেলে। এ ঘটনায় দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগে ২ পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

আখাউড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) মো. শফিকুল ইসলাম গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, থানা থেকে পালিয়ে যাওয়ার পর থেকেই তাকে গ্রেপ্তার করতে অভিযান অব্যাহত রেখেছিল পুলিশ। এক গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার (৩ জুলাই) ভোরে কসবা উপজেলার বিনাউটি এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ। পরে তাকে আজ ব্রাহ্মণবাড়িয়া আদালতে প্রেরণ করা হবে।

উল্লেখ্য, গত সোমবার (১ জুলাই) সকালে ধরখার পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা মাদক উদ্ধারে অভিযান চালায়। অভিযান চলাকালে আরজু মিয়াকে ৪ কেজি গাঁজাসহ আটক করে পুলিশ। এবং বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তার নামে নিয়মিত মাদক মামলা রুজু করে পুলিশ ফাঁড়ি থেকে আখাউড়া থানায় সোপর্দ করা হয়।

আখাউড়া থানায় আরজু মিয়াকে একটি কক্ষে দরজা বন্ধ করে রাখা হয়। কিন্তু আরজু মিয়া ওই কক্ষের জানালার গ্রীল ভেঙে দুপুর ২টার দিকে পালিয়ে যায়।

আসামি থানা পুলিশের হেফাজত থেকে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় সংবাদ মাধ্যমসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তোলপাড় সৃষ্টি হলে। পরদিন মঙ্গলবার (২ জুলাই) দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে ঘটনার দিন দায়িত্বে থাকা ডিউটি অফিসার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) নিজাম উদ্দিন ও কনস্টেবল জোৎস্না বেগমকে সাময়িক বরখাস্ত করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পুলিশ সুপার সাখাওয়াত হোসেন।

শেয়ার করুন

Sorry, no post hare.